শিরোনামঃ
ভাষানচর হামিদ নগর উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত অস্ত্র মামলায় ফরিদপুরে রুবেল ও তার সহযোগীর ১৭ বছরের কারাদণ্ড বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নিতে যাওয়া আরেক মুসল্লির মৃত্যু ফরিদপুরে স্যুটকেসে লাশ উদ্ধারের হত্যাকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে বাজারে আসছে পারমানবিক ব্যাটারি, এক চার্জে স্মার্টফোন চলবে ৫০ বছর ফরিদপুর টু গুলিস্তান গোল্ডেন লাইন বাসের নতুন সময়সূচী- নির্বাচিত হতে পারলে প্রাইমারী স্কুল করে দেবো – এ.কে আজাদ পথচারীকে বাচিয়ে প্রান নিলো ভ্যান চালকের রাজবাড়িতে বাড়ি লিখে না দেওয়ায় শাশুড়িকে মারধর করলো পুত্রবধূ পদ্মা সেতু হয়ে “সুন্দরবন ও বেনাপোল এক্সপ্রেস” ট্রেনের সময়সূচি
বাসা থেকে বিয়ে না দেয়ায় নিজের মৃ’ত্যুর নাটক সাজালো ছেলে

বাসা থেকে বিয়ে না দেয়ায় নিজের মৃ’ত্যুর নাটক সাজালো ছেলে

বিয়ের জন্য নিজের মৃ’ত্যুর নাটক সাজালো ছেলে
বারবার বাড়িতে তার বিয়ের কথা বলতেন।  কিন্তু পরিবার খুব একটা সাপোর্ট করেনি।  অবশেষে নতুন কৌশল নিলেন যুবক।  পরিবারের ওপর বিয়ের জন্য চাপ দিতেই আত্ম’হত্যা করেন তিনি।  আর সেই ছবি বন্ধুর হোয়াটসঅ্যাপে পাঠিয়ে বাড়িতেও পৌঁছে দেন তাঁর ‘মৃ’ত্যুর’ বার্তা।  বার্তায় তিনি তার বাবাকে লিখেছেন, ‘বিয়ে করলে এমন দিন দেখতে হতো না’।  এ ঘটনায় ওই যুবককে আটক করেছে পুলিশ।  ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তর প্রদেশে।  আনন্দবাজার পত্রিকার খবর।

  খবরে বলা হয়েছে, ওই যুবকের নাম অজয়।  তার বাবার নাম অশোক কুমার।  গত কয়েক মাস ধরে সে তার বাবাকে বিয়ের জন্য চাপ দিচ্ছিল।  অশোক ছেলেকে সাফ জানিয়ে দেন, এখন বিয়ে দেওয়া যাবে না।  বাবার সিদ্ধান্তে তিনি মোটেও সন্তুষ্ট ছিলেন না।  তাই তিনি তার বাবাকে ‘উচিত শিক্ষা’ দেয়ার উপায় খুঁজছিলেন।

  অজয় ১১ মার্চ হঠাৎ বাড়ি থেকে নিখোঁজ হন। ১২ মার্চ তার মোবাইলে একটি অডিও বার্তা রেকর্ড করেন। সেই অডিও বার্তায় তিনি তার বাবাকে বলেছিলেন, ‘আমাকে অপহরণ করা হয়েছে।  আমাকে মারধর করা হচ্ছে, আমাকে বাঁচান!’  পরের দিন, অর্থাৎ ১৩ মার্চ রাতে, অজয় ​​একটি ঝোপের মধ্যে পড়ে থাকা ও চোখ বন্ধ অবস্থা তার বন্ধুর মোবাইলে একটি ছবি তোলেন।  তারপর সেই ছবি বন্ধুকে হোয়াটসঅ্যাপে পাঠান।  আনশুল নামের ওই বন্ধু ছবিটি অজয়ের বাবার কাছে পৌঁছে দেন।

  ছেলের মৃতদেহের ছবি দেখে হতবাক হয়ে যান বাবা অশোক।  সঙ্গে সঙ্গে পুলিশের কাছে যান তিনি।  সেই ছবি নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।  পুলিশ অজয়ের মোবাইলের অবস্থান শনাক্ত করে এবং দিল্লির ঠিকানা খুঁজে পায়।  এরপর পুলিশের একটি দল কাসগঞ্জের উদ্দেশে রওনা হয়।  সেই মুহূর্তে কাসগঞ্জ হয়ে উজানীর দিকে যাচ্ছিলেন অজয়।  মাঝপথে তাকে আটক করে পুলিশ।  তখনই প্রকাশ্যে আসে পুরো নাটক।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




সর্বশেষ খবর

©2020 SomoyerKhbor All rights reserved ®

Design BY NewsTheme