অস্ত্র মামলায় ফরিদপুরে রুবেল ও তার সহযোগীর ১৭ বছরের কারাদণ্ড

অস্ত্র মামলায় ফরিদপুরে রুবেল ও তার সহযোগীর ১৭ বছরের কারাদণ্ড

অস্ত্র মামলায় ফরিদপুরে রুবেল ও তার সহযোগীর ১৭ বছরের কারাদণ্ড

অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইনে দায়ের করা মামলায় ফরিদপুর প্রেসক্লাবের বহিষ্কৃত সভাপতি ইমতিয়াজ হাসান রুবেল (৪৯) ও তার সহযোগী রেজাউল করিম বিপুলকে (৩৮) দুই ধারায় মোট ১৭ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

রোববার দুপুরে ফরিদপুর জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক অশোক কুমার দত্ত এ রায় দেন। এ সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায় ঘোষণার পর পুলিশি পাহারায় তাদের কারাগারে পাঠানো হয়।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, আসামিদের পিস্তল রাখার অপরাধে অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইন, ১৮৭৮ সালের ১৯ (এ) ধারায় ১০ বছর এবং একই আইনের ১৯ (এফ) ধারায় ৭ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। . আদালতের রায়ে বলা হয়েছে, অভিযুক্তরা একসঙ্গে উভয় সাজা ভোগ করতে পারবেন। ফলে তাদের ১০ বছরের কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে।

ফরিদপুর জজ আদালতের পিপি নওয়াব আলী বলেন, এই রায় দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার পথ সুগম করবে। এই রায় প্রমাণ করেছে ক্ষমতার ছত্রছায়ায় অপরাধ করে রেহাই পাওয়ার কোনো উপায় নেই।

পুলিশ ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, সাজ্জাদ হোসেন বরকত, তার ভাই ইমতিয়াজ হাসান রুবেল ও তার সহযোগী রেজাউলের বিরুদ্ধে অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইনে পৃথক দুটি মামলা হয়েছে। এদের মধ্যে বরকত ও রুবেল অস্ত্র মামলার আসামি। রুবেল ও তার সহযোগী রেজাউল করিম আরেকটি অস্ত্র মামলার আসামি। এ দুটি মামলা ছাড়াও বরকত ও রুবেলের বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিংসহ বিভিন্ন অপরাধে মোট ১১টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে অস্ত্র মামলায় প্রথম বিচার শেষে রায় ঘোষণা করা হয়।

২০২০ সালের ৭ জুন রাতে ফরিদপুর শহরের শ্রী অঙ্গন মাইক্রোবাস স্ট্যান্ড এলাকা থেকে রেজাউল করিমকে একটি পিস্তল ও দুটি গুলিসহ গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ। এ ঘটনায় উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল জব্বার বাদী হয়ে রেজাউল করিমের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা করেন। পরে এ মামলায় ১৬৪ ধারায় দেওয়া জবানবন্দিতে আসামি ইমতিয়াজ হাসান রুবেলের নাম উল্লেখ করেন। পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফরিদপুর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফরহাদ হাসান তদন্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। রেজাউল করিম ও ইমতিয়াজ হাসানের বিরুদ্ধে অভিযোগ।

উল্লেখ্য, জেলা আওয়ামী লীগের তৎকালীন সভাপতি সুবল চন্দ্র সাহার বাড়িতে হামলার ঘটনায় আলোচিত দুই ভাইকে ২০২০ সালের জুন মাসে গ্রেপ্তার করা হয় আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন বরকতকে। এবং ফরিদপুর প্রেসক্লাবের বহিষ্কৃত সভাপতি ইমতিয়াজ হাসান রুবেল। এ সময় পুলিশ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে দুই ভাই ও তাদের সহযোগী রেজাউল ইসলামসহ ৯ জনকে আটক করে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




©2020 SomoyerKhbor All rights reserved ®

Design BY NewsTheme